মালয়েশিয়ার মত সৌদিআরবের অবস্থা হবে। সবাই শেয়ার করুন

সৌদি আরবের ভিসা সেন্টার বা ড্রপ বক্স চালুর উদ্যোগে রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর একটি বড় অংশের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। দু’টি ভিসা সেন্টারের মাধ্যমে ভিসা জমা নেয়ার সব আয়োজন সম্পন্ন হলেও এজেন্সিগুলোর আন্দোলনের মুখে তা আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে মনে করছে আন্দোলনকারী এজেন্সিগুলো। তবে যেকোনো সময় সেন্টার দু’টি চালুর
আশঙ্কায় এজেন্সিগুলো তাদের আন্দোলন কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে। আগামী শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনের কর্মসূচি রয়েছে ক্ষুব্ধ এজেন্সিগুলোর। এজেন্সিগুলো বলছে, ভিসা সার্ভিস সেন্টার প্রতিষ্ঠা পেলে মালয়েশিয়ার মতো সৌদি আরবের শ্রমবাজারও সিন্ডিকেটের হাতে চলে যাবে। আশঙ্কার প্রধান কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে,
আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বড় কোনো কোম্পানিকে না দিয়ে মাত্র দু’টি রিক্রুটিং এজেন্সির মালিকের তৈরি করা কোম্পানিকে গোপনে এই সেন্টারখোলার অনুমতি দেয়া হয়েছে যারা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সিন্ডিকেটের সাথেও জড়িত ছিল।

আলোচনা বিষয় বস্তু 

    যেই লাউ সেই কদু মনে আছে বাংলাদেশি দশটি এজেন্ট কোম্পানি যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় কলিং ভিসায় লোক পাঠাতো সেই দশটি কোম্পানিকে মালয়েশিয়া সরকার  ব্ল্যাকলিস্ট বা কালো তালিকাভুক্ত করে তাদেরকে বন্ধ করে দেয়। একই সাথে
বাংলাদেশ থেকে কলিং ভিসায় মালয়েশিয়া শ্রমিক আনাও বন্ধ করে দেয় মালয়েশিয়া সরকার এই দশটি এজেন্টের দুর্নীতির দায়ে।  তারা বাংলাদেশী হতদরিদ্র শ্রমিক যারা মালয়েশিয়া আসতো তাদের থেকে 15 থেকে 20 হাজার রিঙ্গিত পর্যন্ত নিয়েছে।  এই দশটি এজেন্সি গত এক বছরে এক লাখের বেশি কলিং ভিসায় বাংলাদেশী শ্রমিক মালয়েশিয়ায় পাঠিয়ে তারা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ।  মালয়েশিয়া সরকার ক্ষমতায় আসার  পর পর তাৎক্ষণিকভাবে দুর্নীতির দায়ে 10 টি কোম্পানি কে কালো তালিকাভুক্ত করে বন্ধ করে দেয় সেই একই দশটি কোম্পানি আবার সৌদি আরবে
লোক পাঠানোর জন্য   উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা কে হাত করে তারা আবারো সৌদি আরব সিন্ডিকেট গড়ার জন্য কৌশল পেতেছে।  যেখানে নেপাল ভারত মিয়ানমার
অন্যান্য দেশের শ্রমিকদের বিভিন্ন দেশে যেতে 50 থেকে 60 হাজার টাকার মধ্যে যেতে পারে সেখানে বাংলাদেশী দালালদের দৌরাত্ম্য কারণে তিন থেকে চার লাখ টাকা খরচ করে বিদেশে পাড়ি জমাতে হয় এই অচলাবস্থা বাংলাদেশীদের কি সবসময় চলতে থাকবে এর কি কখনই নিরসন হবে না।

লেখাটি অবশ্য শেয়ার করিবেন যাতে সবাই জানতে পারে        

No comments

Powered by Blogger.