মালয়েশিয়ায় বিদেশি শ্রমিকরা নগত টাকার গরু। এনজিও

মালয়েশিয়ায় অবৈধদের বৈধকরণ প্রক্রিয়া শুরু করে 2016 সালের ফেব্রুয়ারি থেকে। মালয়েশিয়া সরকার কর্তৃক ঘোষিত কর্মসূচিতে মালয়শিয়া সরকার তিনটি বেসরকারি কোম্পানিকে অনুমতি দেয় এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করার জন্য।
১.মাইজি
২.বুকিত মেগা
৩.ইমান

 এ কর্মসূচির আওতায় ৭৪৪৫২  নিবন্ধিত হয় অবৈধ শ্রমিকরা বৈধ হওয়ার আশায়, কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে নানা জটিলতায় এবং সরকার কর্তৃক ভিসা দেয়ায় মাত্র 1 লক্ষ 20 হাজার শ্রমিক
ভিসা কাজের অনুমতি পায় মালয়েশিয়ায়। বাকি পাঁচ লক্ষ শ্রমিক যারা অবৈধ থেকে বৈধ হওয়ার জন্য নিবন্ধিত হয়েছেন তারা পাঁচ হাজার থেকে সাত হাজার রিংগিট পর্যন্ত দিয়েছিলেন কিন্তু তাদের টাকা নিয়ে সরকার কর্তৃক কোম্পানিগুলি তাদেরকে আর ভিসা দেয়া হয়নি। এমতাবস্থায় মালয়েশিয়ার একটি মানবাধিকার বেসরকারি সংস্থা এনজিও প্রশ্ন তুলেছেন সরকারকে যদি তাদেরকে ভিসা না  দেয় তাহলে তাদের থেকে কেন 5000 রিঙিত করে সরকার নিয়েছে? সরকার জানত যে সবাই ভিসার অনুমতি পাবে না কিন্তু সরকার কেন সবার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে এখন তাদেরকে দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য সরকার চাপ দিতেছে? অবৈধ শ্রমিকদের কি দোষ সরকার তাদের থেকে ভিসা বা কাজ করার অনুমতি দেবে বলে তাদের থেকে 5000 রিংগিত  করে টাকা নিয়েছে এখন তাদেরকে
 হুমকি দিচ্ছে ভালোর জন্য দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য। সরকার এদেশের অবৈধ শ্রমিকদের কে নগদ টাকার গরু হিসাবে ব্যবহার করেছে এখন তাদেরকে বলছে দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য
এরকম অবস্থায় এনজিওটি সরকারকে বলেছে শ্রমিকদের টাকা তাদেরকে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য তাদের দেশে ফিরে যাওয়ার আগেই।

No comments

Powered by Blogger.