অশান্তির দেশ ছেড়ে বিদেশ চলে যাবো। পড়ুন বাস্তবতা কতটা কঠিন

 হতাশা হতাশা নাই কোন জীবনের নিরাপত্তা নাই কোন সুষ্ঠুভাবে জীবনযাপনের জন্য সুন্দর একটি দেশ,

রাজনৈতিক অস্থিরতা ব্যবসা-বাণিজ্যে লোকসান ব্যাংকিং খাতে দুর্নীতি, শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারি শেয়ারবাজার থেকে দলীয় লোকজনের দাপটে বিনিয়োগকারীদের টাকা নিয়ে উধাও। ঢাকা শহর
যেটা পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে নিকৃষ্ট শহরের তালিকায় এক নম্বরে উঠে এসেছে। ঢাকা শহর যেখানে বায়ু দূষণ হচ্ছে পৃথিবীর এক নম্বর বায়ু দূষণের শহরের তালিকায়। শহরের অশান্তি থেকে নিরাপত্তার জন্য গ্রামে যাবেন?   ভাবছেন গ্রামে গিয়ে সহজ-সরলভাবে কৃষিকাজ করে সুন্দরভাবে জীবন কাটিয়ে দিবেন গ্রামের জীবনকে উপভোগ করবেন আসলে কি সম্ভব?  আপনার গ্রামে যেভাবে পেতি নেতার উদ্ভব হয়েছে যেভাবে শিশু থেকে শুরু করে কিশোর
থেকে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত রাজনীতিক ঢুকে গিয়েছে আপনি কি মনে করছেন আগের মত সেই চা দোকানে বসে মুরব্বিদের সাথে কথা বলবেন চায়ের চুমুকে চুমুকে সুন্দর আলাপ-আলোচনা করবেন গল্পগুজব করবেন সেই সুন্দর পরিবেশকে এখনোও গ্রামে আছে?  চা দোকান থেকে শুরু করে বাজার বন্দর গ্রামের বাড়ি পর্যন্ত এখন মানুষের আলাদা পরিচয় হয়েছে সেটি হলো রাজনৈতিক পরিচয়। আপনি  জায়গা জমি বিক্রয় বিচার সালিশ  অনুষ্ঠান করবেন জয় করুন আপনাকে আগে রাজনৈতিক নেতাদের প্রথম অতীতের তালিকায় রাখতে হবে আপনার আগের মত সেই
সুদিন আর নেই যে গ্রামের মাতব্বর একজন জ্ঞানী ব্যক্তিকে আপনি বিচার সালিশের প্রধান অতিথি করবেন আপনার জাতীয় যাবতীয় সমস্যার সমাধানের জন্য একজন জ্ঞানী ব্যক্তির পরামর্শ নিবেন সেই সুযোগ কি এখনো গ্রামে আছে? আপনাকে অবশ্যই রাজনৈতিক পরিচয় দারি একজন নেতার সাহায্য নিতে হবে আপনি যদি না নিতে চান তাহলে আপনাকে জোর করে হলোও রাজনৈতিক নেতাদের সাহায্য নিতে হবে। রন্ধ্রে রন্ধ্রে রক্তে রক্তে যে রাজনীতির বিষ  ঢুকে গেছে সেই বিষের যন্ত্রণায় মানুষ এখন না পারে বলতে না পারে সইতে মানুষ মুক্তির জন্য অপেক্ষায় কেউ ভিটা বাড়ি বিক্রি করে বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে কেউ বৈধ পথে কেউ অবৈধ পথে হলেও একটু শান্তি প্রশান্তির আশায়  বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে।  লক্ষ লক্ষ বাঙালি বললে ভুল হবে বলতে হবে কোটি কোটি বাঙালি এখন দেশ ছেড়ে অন্যত্র অন্য দেশে গিয়ে একটু সুখে শান্তিতে বসবাস করতে চায়।

No comments

Powered by Blogger.