মালয়েশিয়ার পেনাংয়ের

   মালয়েশিয়ায় করোনা ভাইরাসের প্রভাবে গত এক বছর যাবত আন্তর্জাতিক কোন পর্যটক আসা বন্ধ রয়েছে শুধু মালয়েশিয়া নয় সারা বিশ্বেই আন্তর্জাতিক পর্যটনের আনাগোনা বন্ধ রয়েছে মালয়েশিয়া বিশ্বের  অন্যতম একটি পর্যটন নগরী দেশ এদেশে রয়েছে বহু ইতিহাস ঐতিহ্য এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য একটি গন্তব্য তবে গন্তব্য করণা ভাইরাসের কারণে বিষাদে রূপ নিয়েছে পর্যটকদের কেন্দ্র করে মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন স্থানে রয়েছে অসংখ্য হেটেল রিসোর্ট পর্যটকদের জন্য ক্লাব বিভিন্ন আকর্ষণীয় প্রদর্শনী ও কমিউনিটি সেন্টার। মালয়েশিয়ার অন্যতম প্রাচীন নগরী পৌঁছেছে বাংলাদেশ বনাম আইল্যান্ড এখানে রয়েছে বহু বছরের ইতিহাস ও ঐতিহ্য।   আগের দিনে পেনাং প্রদেশ এ চলাচলের জন্য রিস্কা  চালাত সেটি এখন ঐতিহ্য হিসেবে রয়েছে পেনাং প্রদেশে।  কিন্তু বর্তমানে যে কয়টি রিস্কা চালক বারিশ কা অবশিষ্ট রয়েছে সবগুলোই মূলত এক প্রকার সিনিয়র সিটিজেন কিন্তু বর্তমানে যে কয়টি রিস্কা চালক  অবশিষ্ট রয়েছে সবগুলোই মূলত এক প্রকার সিনিয়র সিটিজেন বা মধ্য থেকে বৃদ্ধ বয়সী লোকেরাই চালায়, স্থানীয় কিছু চাইনিজ নাগরিক এবং মালাইও নাগরিক যাদের বয়স 40 থেকে 60 উদ্যো তারাই মূলত এই সকল রিস্কা চালক তাদের রিস্কার যাত্রীরাই হচ্ছে বিভিন্ন দেশ থেকে ঘুরেতে আসা 


পর্যটকরা  কিন্তু গত দেড় বছর যাবত করণা ভাইরাসের কারণে সকল প্রকার  পর্যটক আসা বন্ধ রয়েছে তাই এই সকল আধা বৃদ্ধ বয়স্ক পর্যটক আসা বন্ধ রয়েছে তাই এই সকল বাধা বৃদ্ধ বয়স্ক লোকেরা   মানবেতর জীবনযাপন করছেন পর্যটক না থাকায় বেকার জীবনে হতাশায় তাদের জীবন পার করতে হচ্ছে এই কঠিন সময়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন পেনাংয়ের সিটি কর্পোরেশন এবং স্থানীয় ধনাঢ্য বিশিষ্ট লোকজন,  জনপ্রতি প্রায় 300 থেকে 400 রিংগিত করিয়ে দেয়া হয়েছে কিন্তু একজন বয়স্ক লোক বলেন তার এই টাকা দিয়ে তার বাড়ি ভাড়ার প্রশ্ন কিন্তু সে কি খাবে কিভাবে দিন পার করবে এ নিয়ে হতাশায় তার দিন পার করতে হচ্ছে

No comments

Powered by Blogger.